'সেন্টি' খেয়ে 'প্যারায়' আছি

in BDCommunity2 months ago

বর্তমান আধুনিক যুগের আধুনিক ছেলেমেয়েরা কিছু শব্দ ব্যবহার করে যা আগে তেমন প্রচলন ছিলো না।শব্দগুলো অবশ্য বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ইংরেজি হয়।এই ইংরেজি শব্দগুলো তারা এতো বেশি ব্যবহার করছে আজকাল যে এগুলো এখন বাংলা ভাষার অভিধানে স্থান পেয়ে যাবে এমন অবস্থা।মেডিকেলে প্রথম প্রথম ভর্তি হওয়ার পর কলেজের একটা 'মেসেঞ্জার গ্রুপে' দেখলাম একটা মেয়ের নাম 'পশআপা' লিখা।আমি চিন্তায় পড়ে গেলাম।এটা আবার কোন ধরনের আপা।বড়আপা,মেজুআপা,সেজুআপা,ছোটআপা কত ধরনের আপা আছে কিন্তু কখনওতো পশআপা বলতে কিছু শুনি নি।আমি আবার কোনো কিছু যদি বুঝতে না পারি বা না জানি,এমন কিছু হলে সরাসরি মানুষের কাছে জানতে চাই না যে,এটা কি?বা এটা কেনো এইরকম? আগে নিজে বুঝার চেষ্টা করি।বিভিন্ন বইপত্র ঘেঁটে দেখি,তারপর নেট দুনিয়ায় খুঁজে দেখি,তারপরও না বুঝলে, এটা বুঝবে এমন মানুষকে জিজ্ঞেস করি।তবে আজকাল নেটদুনিয়ায়, নির্দিষ্টভাবে বলতে 'গুগলে' কোনো প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায় না এটা অসম্ভব বেপার।তবে সেখানেও নিজের জন্য সঠিক উত্তরটি খুঁজে নেওয়ার যোগ্যতা থাকতে হবে।

যাইহোক,পশ এর অর্থ আর পাচ্ছি না।যেহেতু শব্দটা বাংলায় লিখা ছিলো তাই বাংলা ডিকশিনারিতে খুঁজলাম,না পেলাম না।তারপর বুঝতে পারলাম এটা নিশ্চয়ই বাংলাতে লিখা কোনো ইংরেজি শব্দ,যেটাকে কিনা মজা করে বলে বাংলিশ।তখন ইংরেজি ডিকশিনারিতে খুঁজলাম,কিন্তু যেহেতু বাংলাতে লিখা ছিলো শব্দটা,ইংরেজি বানান জানিনা, তাই 'P' বর্ণের মাঝে অনেকগুলো শব্দ খুঁজে অবশেষে পেলাম "Posh". যার মানে হচ্ছে 'ফিটফাট ও চটপটে'।

এই শব্দের মতো আরও অনেক শব্দ আছে যেগুলো আগের মানুষের বুঝতে একটু কষ্ট হয়,আধুনিক ছেলেপেলেরা যেখানে অভিজ্ঞ।আগের মানুষ বলতে কি বুঝায়?আমার এক মামাতো ভাই যে কিনা জন্ম গ্রহণ করেছে দুইহাজার সালের পর মানে দুইহাজার এক সালে,সে নিজেকে আধুনিক হিসাবে দাবী করে।তার এই দাবী অনুযায়ী বলতে পারি,দুইহাজার সালের পূর্বে যারা জন্ম গ্রহণ করেছে তারা আধুনিক না,বরং এর পর যারা জন্ম গ্রহণ করেছে তারাই হচ্ছে আধুনিক।বয়স অনুযায়ী এভাবেই ভাগ করা যেতে পারে।তো এই আধুনিক ছেলেমেয়েরা এমন আরেকটি শব্দ ব্যবহার করে,যেমনঃ"ক্রিঞ্জ" এটিও একটি ইংরেজি শব্দ 'cringe'.এর শাব্দিক অর্থতো হীনভাবে নত হওয়া।কিন্তু এটি একটি বিশেষ ভাবার্থে ব্যবহার করা হয়।এটিকে নেগেটিভ অর্থে ব্যবহার করা হয়।যেমন,এই গানটা পুরোই ক্রিঞ্জ।মানে এই গানটা অনেক নিম্নমানের এমন কিছু একটা বুঝাতে এই শব্দটা ব্যবহার করা হয়।তবে ঠিক কোন অর্থে এটি ব্যবহার হচ্ছে এটি লিখে বুঝাতে পারছি না,যারা এই শব্দটা ব্যবহার করেন তারাই শুধু বুঝবেন।তো আমার এক বন্ধু যারও কিনা এসব আধুনিক শব্দ সম্পর্কে তেমন ধারণা নেই,সে ঐদিন আমাকে বলছিলো,"আজ পর্যন্ত এই ক্রিঞ্জ শব্দটার মানে বুঝলাম না"।যখন তাকে এই ক্রিঞ্জ শব্দটার মানে বললাম,তখন সে বললো,"আসলে এই ক্রিঞ্জ শব্দটাকেও আমার কাছে ক্রিঞ্জ লাগে"।

যেরকম মেসে যখন কোনো ভালো খাওয়া-দাওয়া হয় তখন এটাকে বলে "ফিস্ট"।মেসে যেহেতু বেশিরভাগ সময় খাওয়া দাওয়া তেমন ভালো হয় না,তাই যেদিন ভালো খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়,সেটাকে বলা হয়,ফিস্ট।যেমন,আজকে রাতে ফিস্ট আছে।যদিও ''feast'' এর অর্থ ভোজ।কিন্তু এটাকে ভালো খাওয়া-দাওয়ার অর্থেই ব্যবহার করে মেসবাসী।

তারপর এরকম বাক্য প্রায়ই শুনা যায় যে,আরে ভাই 'সেন্টি' খাইস না।এটা আবার কি ধরনের খাবার!এটা আবার কেমনে খায়!বড় আশ্চর্যজনক কথা।না এটা তেমন আশ্চর্যের কিছু নেই,এই সেন্টি(Senti),শব্দটা এসেছে Sentiment থেকে যার অর্থ অনুভূতি।যেটাকে এখন ব্যবহার করা হয় আবেগাপ্লুত অর্থে।

তারপর,সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সবচেয়ে পরিচিত বাক্য " প্যারা নাই চিল"।না ভাই, এই চিল আকাশে উড়ে না।এটা হচ্ছে একটি ইংরেজি শব্দ 'Chill' যার মানে হচ্ছে শীতলতা।যেটাকে এখন ব্যবহার করা হয় খুবি শান্তিতে আছে,মাথায় কোনো দুঃশ্চিন্তা নেই এমন অর্থে।আর প্যারা শব্দটি কোনো ইংরেজি শব্দও না বা বাংলা শব্দও না,এটা কোন অভিধানের শব্দ না।মানুষের মুখে মুখে প্রচলিত শব্দ।এটাকে কষ্টে আছে,বা ভোগান্তিতে আছে এমন অবস্থা প্রকাশে ব্যবহার করা হয়।হয়তোবা এটি ইংরেজি Pain এর আঞ্চলিক রুপ।

আবার খাবারের স্বাদ অনেক ঝাল,এটার জন্য ব্যবহার করে ''নাগা''।এমন আরও অনেক শব্দ আছে,আবার অনেক বাক্যও রয়েছে যেমন,"আই মিন" মানে আমি বুঝাতে চাচ্ছি।যাইহোক,এসব আধুনিক শব্দ শিখানো আমার উদ্দেশ্য ছিলো না।তবে মাঝেমধ্যেই যারা একটু আদিম মানুষ মানে বিংশ শতাব্দীতে জন্ম এবং বেড়ে উঠা তাদের এসব শব্দ বুঝতে কষ্ট হয়,আবার অনেক সময় অনেক বিড়ম্বনায় পড়তে হয়।তবুও এসব শব্দ আমাদের বাংলা ভাষার অভিধানকে হয়তো সম্মৃদ্ধ করে তুলছে।সম্মৃদ্ধ করছে না ডুবাচ্ছে এটা ভেবে আমি "প্যারায়" আছি।

Screenshot_2022_0811_011413.png

Sort:  

Have a relax😁

হ্যাঁ এগুলোই....