কি হবে যদি পৃথিবীর সব জ্বালানি তেল শেষ হয়ে যায়?

in BDCommunity2 months ago

কি হবে যদি পৃথিবীর সব জ্বালানি তেল শেষ হয়ে যায়? বর্তমান বিশ্বের সব প্রযুক্তি এত এত উন্নয়নের মূল হাতিয়ার হচ্ছে এই জ্বালানি তেল। আমাদের দৈনন্দিন কাজে প্রতিনিয়ত ব্যবহিত হচ্ছে এই জ্বালানি তেল। জ্বালানি তেলের ঘাটতি পড়লেই দেখা যায় সব নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়ে যায়, যাতায়াত খরচ বেড়ে যায়, বিদ্যুতের ঘাটতি দেখা যায়। বর্তমান বিশ্বে নানা সমস্যার কারণে ও দেশে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির কারণে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্য বৃদ্ধি থেকে শুরু করে যাতায়াত খরচ ও বিদ্যুতের ঘাটতি দেখা দিয়েছে। আর যদি এই জ্বালানি তেল শেষ হয়ে যায় তাহলে কি হতে পারে!

জ্বালানি তেল শেষ হয়ে গেলে সব যাতায়াত বেবস্থা বন্ধ হয়ে যাবে। সব গাড়ি চলাচলের অযোগ্য হয়ে উঠবে। তেল এর পরিবর্তে গ্যাস ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে এত বিপুল সংখ্যক যানবাহন শুধু গ্যাসের মাধ্যমে চালানো শুরু করলে সেটাও এক সময় সংকট তৈরি হয়ে যাবে। বর্তমানেই এখন দেশে গ্যাসের সংকট দেখা দিয়েছে। আর যদি এত বিপুল সংখ্যক যানবাহন গ্যাস দিয়ে চালানো হয় তাইলে সেটা অনেক ব্যয়বহুল ও খুব তাড়াতাড়ি গ্যাসের অভাব দেখা দিবে। আগের দিনে জ্বালানি তেলের পরিবর্তে কয়লা ব্যাবহার করা হতো। কয়লা দিয়ে আগে জ্বালানি হিসেবে ব্যাবহার করা হতো। কিন্তু এই কয়লা ব্যাবহার করলেও এক সময় কয়লার সংকট দেখা দিবে।

জ্বালানি তেল শেষ হয়ে গেলে বিশ্বের অনেক দেশ অনেক বড় অংকের অর্থনৈতিক সংকটে পড়ে যাবে। পশ্চিমা বিশ্ব ও আরব বিশ্বের দেশ গুলো যারা তেল বিক্রি করে তাদের অর্থনীতিতে বিপুল পরিবর্তন নিয়ে এসেছে, তাদের অর্থনীতি একদম ধসে পড়বে। জ্বালানি তেল পুরো বিশ্বে যে আমূল পরিবর্তন এনেছে । স্বর্ণ রূপা, হিরাও এমন পরিবর্তন আনতে পারে নি। জ্বালানি তেল শেষ হয়ে গেলে বিশ্বের সব দেশের অর্থনীতির অবস্থা খারাপ হয়ে যাবে।

পৃথিবীর সব জ্বালানি তেল শেষ হয়ে গেলে পৃথিবীতে বিদ্যুতের ঘাটতি দেখা দিবে। আর বিদ্যুতের ঘাটতি দেখা দিলে সব ধরনের কলকারখানা, অফিস, সমস্ত প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাবে। আর বিদ্যুতের ঘাটতি দেখা দিলে সব ধরনের প্রযুক্তি বন্ধ হয়ে যাবে। মানুষের জীবযাত্রার মান ধীরগতি সম্পন্ন হয়ে যাবে। মানুষ সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে পড়বে।

পৃথিবীর সব জ্বালানি তেল শেষ হয়ে গেলে পৃথিবী আবার সেই আদিম যুগের মত অবস্থা হয়ে যাবে। মানুষ সব আবার আগের দিনে ফিরে যাবে। আগে মানুষ যাতায়াতের জন্য গরুর গাড়ি ব্যাবহার করতো, কোনো বিদ্যুতের বেবস্থা ছিল না, জ্বালানি হিসেবে কয়লা ব্যাবহার করতো। আর বৈদ্যুতিক লাইন না থাকলে মোবাইল ফোন , কম্পিউটার ও ইন্টারনেট বেবস্থা কিছুই থাকবে না। মানুষের চলার গতি অনেক কমে যাবে। জীবনযাত্রা ধীরগতি হয়ে পড়বে। পৃথিবীর সব উন্নত দেশগুলো ধীরে ধীরে তাদের অর্থনীতি ও জীবযাত্রার মান হ্রাস পেতে থাকবে।

fuel_oil_de_indirim_h57241_d8a99-73638-1546493637.jpg
IMG